মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ৪ আষাঢ় ১৪৩১
 /  / ২৬০ ফুটের বাঁশের সাঁকোয় ঝুঁকিতে দুই পারের মানুষ
২৬০ ফুটের বাঁশের সাঁকোয় ঝুঁকিতে দুই পারের মানুষ
প্রকাশ: শনিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৩:৩১ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

২৬০ ফুটের বাঁশের সাঁকোয় ঝুঁকিতে দুই পারের মানুষ

২৬০ ফুটের বাঁশের সাঁকোয় ঝুঁকিতে দুই পারের মানুষ

শরণখোলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা : বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা পরিষদের সামনেই প্রায় ২৬০ ফুট (৮০মিটার) দীর্ঘ এক বাঁশের সাঁকো। এই নড়বড়ে সাঁকো দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন শত শত শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষ। এই খালে এক সময় লোহা-আরসিসি স্লিপারের সেতু ছিল। সেটি ভেঙে যাওয়ায় তিন বছর ধরে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদের। খালের দুই পারেই রয়েছে সরকারি দপ্তর ও কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দুই পারের দুই  ইউনিয়নের মানুষ প্রয়োজন মেটাতে উপজেলা পরিষদে আসার জন্য এই বাঁশের সাঁকো পার হয়ে থাকেন। কিন্তু এখানে তিন বছরেও সেতু নির্মাণ না হওয়ায় এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

দেড় বছর আগে উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ এখানে সেতু নির্মাণের জন্য এলজিইডি’র প্রধান কার্যালয়ে প্রস্তাবনা পাঠায়। কিন্তু তা ডিপিপিভুক্ত হয়নি এখনো। এ কারণে সেতু নির্মাণ হচ্ছে না। এমনকি উপজেলা পরিষদ থেকে সংশ্লিষ্ট বিভাগকে অবহিত করেও কোনো ফল মেলেনি।
 
খালের উত্তর পারে ২ নম্বর খোন্তাকাটা ইউনিয়নের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত উপজেলার পরিষদ। এখানে সরকারি সকল দপ্তরের অফিস, অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও টিটি এন্ড ডিসি নামের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। ৩ নম্বর রায়েন্দা ইউনিয়নাধীন খালের উত্তর পারে রয়েছে প্রাণিসম্পদ অফিস, রায়েন্দা মহিলা দাখিল মাদরাসা ও আদর্শ শিশু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এই সাঁকো পার হয়েই এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শত শত কোমলমতি ছাত্রছাত্রী স্কুল-মাদরাসায় আসা-যাওয়া করে। দুই ইউনিয়নের মানুষকে সরকারি অফিসের দাপ্তরিক কাজ সারতে হচ্ছে এভাবেই।
 
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বছর দশেক আগে উপজেলা প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী ও জনসাধারণ সহজ চলাচলের জন্য এই খালের ওপর লোহা ও আরসিসি স্লিপার দিয়ে সেতু নির্মাণ করেন। তিন বছর আগে (২০১৫ সালের ১৯ অক্টোবর সকালে) হঠাৎ সেতুটি ধসে পড়ে। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হয় সবাইকে। পরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. কামালউদ্দিন আকন তার পরিষদের তহবিল থেকে সেখানে বাঁশের সাঁকো তৈরি করেন। পরবর্তিতে সাঁকোটি চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়লে স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর রাজ্জাক তালুকদার জনসার্থে ১১ হাজার টাকা খরচ করে নতুন করে সেটি মেরামত করেন।

২ নম্বর খোন্তাকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খান মহিউদ্দিন বলেন, উপজেলা প্রশাসনের চোখের সামনে বাঁশের সাঁকো থাকাটাও লজ্জার বিষয়। দ্রুত সেতু নির্মাণ না হলে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, প্রায় দেড় বছর আগে এই খালে আরসিসি সেতু নির্মাণের জন্য এলজিইডি’র প্রধান কার্যালয়ে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। কিন্তু সেটি এখনো ডিপিপিভুক্ত হয়নি। সে কারণে সেতু নির্মাণ সম্ভব হচ্ছে না।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিংকন বিশ্বাস জানান, জনগুরুত্বপূর্ণ সেতুটি নির্মাণের জন্য গত ২৭ অক্টোবর উপজেলার মাসিক সমন্বয় সভায় সব মহল থেকেই দাবি উঠেছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হবে।
 




সর্বশেষ খবর
ফোক শিল্পী রোজিনার কণ্ঠে ‘মজাইয়া মজাইয়া’ গান প্রকাশ
বয়স হওয়ার পরও বিয়ে করছেন না দেশের ৩৫ শতাংশ পুরুষ
রাশেক রহমান বিশ্বখ্যাত মারকুইস পাম্পের বাংলাদেশের আইনি প্রতিনিধি নিযুক্ত
নেপিয়ার ঘাস খেয়ে এক খামারির ২৭ গরুর মৃত্যু
ঢাকা ছাড়ছেন নগরবাসী
সর্বাধিক পঠিত
ফোক শিল্পী রোজিনার কণ্ঠে ‘মজাইয়া মজাইয়া’ গান প্রকাশ
জেনে নিন, যে পরিমাণ টাকা থাকলে এ বছর কুরবানি ওয়াজিব হবে
সেরা আটের আশা বাঁচিয়ে রাখতে ১০৭ চাই পাকিস্তানের
মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
ইসরায়েলকে টার্গেট করে ১৭০টি রকেট-ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ!
আরও দেখুন...

Copyright © 2024
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : প্ল্যানার্স টাওয়ার, ১০তলা, ১৩/এ বীর উত্তম সি আর দত্ত রোড, বাংলামটর, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।
ফোন: +৮৮-০২-৪১০৬৪১১১-১৪, ফ্যাক্স: +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪, হটলাইন: +৮৮-০১৯২৬৬৬৭০০৩-৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbanglabd.com
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : প্ল্যানার্স টাওয়ার, ১০তলা, ১৩/এ বীর উত্তম সি আর দত্ত রোড, বাংলামটর, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।
ফোন: +৮৮-০২-৪১০৬৪১১১-১৪, ফ্যাক্স: +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪, হটলাইন: +৮৮-০১৯২৬৬৬৭০০৩-৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]